সেচে নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুতের জন্য বেসরকারি কোম্পানিগুলোকে তাগাদা

0
9

আসন্ন সেচ মৌসুমে বিদ্যুত্ সরবরাহ স্বাভাবিক রাখতে সরকারি বিদ্যুেকন্দ্রের পাশাপাশি কুইক রেন্টাল, রেন্টাল ও বেসরকারি বিদ্যুেকন্দ্রগুলোকে বিদ্যুত্ সরবরাহ নিশ্চিত করার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।বিদ্যুত্ বিভাগের পক্ষ থেকে কোম্পানিগুলোর প্রতিনিধিদের সেচের আগে সব মেরামত করে কেন্দ্রকে পুর্ণ ক্ষমতায় চালানোর উপযোগী করে রাখতে বলা হয়েছে।

গতকাল বিদ্যুত্ বিভাগে সেচ মৌসুমে নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুত্ সরবরাহ শীর্ষক অনুষ্ঠিত এক বৈঠকে এ নির্দেশনা দেয়া হয়।বিদ্যুত্ সচিব মনোয়ার ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বৈঠকে পিডিবির চেয়ারম্যান আবদুহু রুহুল্লাহসহ বিতরণ কোম্পানি এবং বেসরকারি বিদ্যুেকন্দ্রের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।বৈঠকে কোম্পানিগুলোর অধীন বিদ্যুেকন্দ্রগুলোতে কোনো সমস্যা আছে কিনা, মেরামত করতে হবে কিনা অথবা এ বিষয়ে সরকারি কোনো সহযোগিতার প্রয়োজন আছে কিনা তা জানাতে বলা হয়েছে।

বিদ্যুত্ বিভাগ সূত্র জানায়, এবার সেচের সময়ের চাহিদা ধরা হয়েছে সাড়ে সাত হাজার মেগাওয়াট কিন্তু এখন পর্যন্ত সর্ব্বোচ্চ বিদ্যুত্ উত্পাদন হয়েছে পৌনে সাত হাজার মেগাওয়াট।বিদ্যুত্ উত্পাদন বাড়লেও তার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বিতরণ ব্যবস্থা গড়ে ওঠেনি।ফলে পর্যাপ্ত অবকাঠামো এবং বিতরণ ক্ষমতা না থাকায় এই বিদ্যুত্ সংকট দেখা দিতে পারে বলে আশংকা দেখা দিয়েছে।এছাড়া এবার সেচ মৌসুমে বিদ্যুেকন্দ্রগুলোতে ১২ লাখ টনের বেশী তেলের প্রয়োজন হবে।এর মধ্যে ১০ লাখ টন ফার্নেস অয়েল।বিপিসি এ তেল আমদানির আশ্বাস দিলেও পেট্রোবাংলা পিডিবির চাহিদা অনুযায়ি ১ হাজার ১০০ মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস দিতে পারবে না বলে জানিয়েছে।

বর্তমানে তেল খরচ বাড়াতে অনেকগুলো তেলভিত্তিক কেন্দ্র বন্ধ রাখা হচ্ছে।কিন্তু সেচ মৌসুমের বাড়তি চাহিদা পুরণ করতে হলে সরকারি বিদ্যুেকন্দ্রগুলোর পাশাপাশি বেসরকারি কেন্দ্রগুলো পুরোদমে চালাতে হবে।এজন্য বৈঠকে কোম্পানির প্রতিনিধিদের সেচের আগে কেন্দ্র মেরামতসহ সার্বিক কাজ শেষ করে রাখার নির্দেশ দেয়া হয়।যাতে সেচের সময় কেন্দ্রগুলো পুরো দমে চালানো যায়।

পিডিবির তথ্যানুযায়ী, গত বছর মোট সেচ সংযোগ ছিলো ২ লাখ ৯৫ হাজার ৪১৫টি।এর সঙ্গে চলতি বছর অনুমোদন দেয়া আরো ১৩ হাজার ২৫৭টি সংযোগ যোগ হয়ে মোট সেচ সংযোগ হয়েছে ৩ লাখ ৮ হাজার ৬৭২টি।এছাড়া অনুমোদনের অপেক্ষায় আছে আরো ৩১ হাজার ২৫৬টি সেচ সংযোগ।

তিন বিতরণ সংস্থার মধ্যে পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের (আরইবি) আওতাধীন এলাকায় সেচ সংযোগ রয়েছে ২ লাখ ৬৪ হাজার ৭৯৪টি।এছাড়া নতুন সেচের অপেক্ষায় আছে আরো ৩০ হাজার ৪৩৬টি সংযোগ।পিডিবির সেচ সংযোগ রয়েছে ৩৮ হাজার ৯৫৯টি।নতুন সংযোগের অপেক্ষায় আছে ৭৩৬টি।পশ্চিমাঞ্চল বিদ্যুত্ বিতরণ কোম্পানির (ওজোপাডিকো) সংযোগ রয়েছে ৪ হাজার ৯১৯টি।নতুন সংযোগের অপেক্ষায় আছে ৮৪টি।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here