শাহবাজপুরের ৪ নম্বর কুপ থেকে আবার গ্যাস উৎপাদন শুরু

0
7

শাহবাজপুর গ্যাসক্ষেত্রের ৪ নম্বর কূপ থেকে আবারো গ্যাস উৎপাদন শুরু হয়েছে। বুধবার সকাল সাড়ে ৯টায় এ কূপ থেকে পরীক্ষামূলকভাবে আবারো গ্যাস উৎপাদন শুরু করা হয়। বাপেক্সের মহাব্যবস্থাপক ও কোম্পানি সচিব মোহাম্মদ আলী এ তথ্য জানান।

রাশিয়ার কোম্পানি গ্যাজপ্রম এই কূপটি খনন করে। গত বছরের ২৩ মে এ কূপ থেকে গ্যাস উৎপাদন শুরু করা হয়। কূপ খননে প্রায় ১৮৫ কোটি টাকা ব্যয় করা হয়। কিন্তু মাত্র ৮ মাস পরেই এ কূপের গ্যাসের সঙ্গে পানি ও বালি আসতে শুরু করে এবং গ্যাসের চাপ কমে যায়। এ অবস্থায় গত ২৮ জানুয়ারি কুপটি থেকে গ্যাস উৎপাদন বন্ধ করে দেয় বাপেক্স।

এরপর গত ২২ জুলাই বাপেক্স তাদের নিজস্ব জনবল ও প্রযুক্তির সহায়তায় কুপটিতে ওয়ার্কওভার শুরু করে। এরপর গতকাল পরীক্ষামূলকভাবে গ্যাস উত্তোলন শুরু করে। এ কূপ থেকে প্রতিদিন ২০ থেকে ২৫ মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস উত্তোলন করা যাবে বলে আশা করছে বাপেক্স।

শাহবাজপুর গ্যাসক্ষেত্রের চারটি কূপে প্রায় ৩৯০ বিসিএফ গ্যাসের মজুদ আছে বলে পেট্রোবাংলা জানায়। এক্ষেত্র থেকে পুরো জেলায় প্রতিদিন প্রায় ৪২ বিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস সরবরাহ করা হয়। ২৫ মেগাওয়াট ও ৩৪ দশমিক ৫ মেগাওয়াটের দুইটি বিদ্যুৎকেন্দ্র এবং আবাসিক এলাকায় এ গ্যাস দেয়া হয়।

১৯৯৩ সালে ভোলার বোরহানউদ্দিনের কাচিয়া ইউনিয়নে অবস্থিত শাহবাজপুর গ্যাসক্ষেত্র আবিষ্কার করা হয়। এরপর একই বছর ১ নম্বর কূপ খনন শুরু করা হয়, যা ২০০৫ সালে শেষ হয়। ২০০৭ সালে ২ নম্বর কূপের খনন কাজ শুরু হয়ে যার শেষ হয় ২০০৮ সালের দিকে। এরপর ২০১৫ সালে ৩ ও ৪ নম্বর কূপের খনন কাজ করা হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here