রামপাল বিদ্যুৎকেন্দ্র স্থাপনের প্রতিবাদে ১০-১৫ মার্চ লংমার্চ

0
1

কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ প্রকল্প বাতিলসহ সাত দফা দাবিতে আগামী ১০-১৫ মার্চ ঢাকাসহ সারা দেশ থেকে সুন্দরবন অভিমুখে লংমার্চ করতে যাচ্ছে তেল গ্যাস খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটি।
কমিটির সদস্য-সচিব অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ বলেন, রামপাল বিদ্যুৎকেন্দ্র চালু হলে সুন্দরবন ধ্বংস হয়ে যাবে। ধ্বংস হবে সুন্দরবনের বহু লালিত জীববৈচিত্র্যও।
শুক্রবার সাতক্ষীরা জেলা পুরাতন আইনজীবী ভবন মিলনায়তনে আয়োজিত এক সমাবেশে আনু মুহাম্মদ এ কথা বলেন। তেল গ্যাস খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির সাতক্ষীরা শাখা এ সমাবেশের আয়োজন করে।
কমিটির সাতক্ষীরা শাখার আহ্বায়ক আজাদ হোসেন বেলালের সভাপতিত্বে সমাবেশে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির পলিটব্যুরোর সদস্য ও সংসদ সদস্য মুস্তফা লুৎফুল্লাহ, ইউনাইটেড কমিউনিস্ট লীগের সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য আজিজুর রহমান, বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দলের কেন্দ্রীয় নেতা রাজেকুজ্জামান রতন, গণ-সংহতি আন্দোলনের কেন্দ্রীয় নেতা দেওয়ান আবদুর রশিদ নীলু ও জাতীয় গণফ্রন্টের কেন্দ্রীয় নেতা নজরুল ইসলাম প্রমুখ।
সমাবেশে আনু মুহাম্মদ বলেন, সুন্দরবনের কাছে রামপাল বিদ্যুৎ কেন্দ্র বাস্তবায়িত হলে সুন্দরবন ধ্বংস করতে তিন মাসই যথেষ্ট। বিদ্যুৎকেন্দ্র চালুর পর প্রতিদিন শতাধিক জাহাজ আসবে সুন্দরবন হয়ে। যদি কোনো দুর্ঘটনা নাও ঘটে তারপরও ধ্বংস হবে সুন্দরবন। সরকার বারবার বলছে এর বাতাস সুন্দরবনের দিকে যাবে না। কিন্তু এটি মিথ্যাচার। কোম্পানির সঙ্গে যুক্ত লোকজন ছাড়া দেশের বেশির ভাগ মানুষ এর পক্ষে নয়।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here