বড়পুকুরিয়ায় তৃতীয় বিদ্যুৎ ইউনিটের কাজ শুরু

0
4

বড়পুকুরিয়া কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের নতুন একটি ইউনিটের  কাজ শুরু হয়েছে। হারবিন ইলেকট্রিক ইন্টারন্যাশনাল এবং সিসিসি ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি যৌথভাবে এই ইউনিটের নির্মাণ কাজ করছে।
সম্প্রতি সরেজমিন প্রকল্প এলাকায় গিয়ে দেখা যায় পার্বতীপুরের বড়পুকুরিয়া তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের মুল ভবনের (বয়লার ও মেশিন ভবন) উত্তর পাশে পাইলিং এর কাজ চলছে।
বিদ্যুৎকেন্দ্রের প্রধান প্রকৌশলী সারথ চন্দ্র ভাদুড়ী ও নির্বাহী প্রকৌশলী (আই অ্যান্ড সি) মাহবুবুর রহমান বলেন, তিন নম্বর ইউনিটটিতে বয়লার ও গ্যাস টারবাইন উভয়ই থাকবে। এরফলে কয়লা বা গ্যাস দুই জ্বালানি ব্যবহার করে বিদ্যুৎ উৎপাদন করা যাবে। ২০১৮ সালের জুন মাসের মধ্যে ইউনিটটি উৎপাদনে যাওয়ার কথা। তবে যে গতিতে কাজ চলছে তাতে নির্ধারিত সময়ের ৩ মাস আগেই বিদ্যুৎ উৎপাদন শুরু হবে বলে তিনি আশা করেন।
বড়পুকুরিয়া কয়লা খনি থেকে নেয়া কয়লা জ্বালানি হিসেবে ব্যবহার করে খনিমুখে ২৫০ মেগাওয়াট ক্ষমতার একটি বিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপন করা হয়। বর্তমানে কেন্দ্রটিতে দুইটি ইউনিট আছে। প্রতিটির উৎপাদন ক্ষমতা ১২৫ মেগাওয়াট। এখানেই ২৭৫ মেগাওয়াট ক্ষমতার তিন নম্বর ইউনিট স্থাপন করা হচ্ছে। এতে প্রাথমিক খরচ ধরা হয়েছে দুই হাজার ৪০ কোটি টাকা।
তিন নম্বর ইউনিটটি চালু হলে বড়পুকুরিয়ায় উৎপাদন ক্ষমতা হবে ৫২৫ মেগাওয়াট।
এতে দেশের উত্তর-পশ্চিম অঞ্চলের বিদ্যুতের চাহিদা পুরণ হবে এবং লো ভোল্টেজ সমস্যা কমবে বলে আশা করছে কর্তৃপক্ষ।
২০১৩ সালে ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির এই প্রকল্প অনুমোদন দেয়। একই বছর জুলাই মাসে কোম্পানিটির সঙ্গে পিডিবি চুক্তি করে। চুক্তি অনুযায়ি তিন বছরের মধ্যে ইউনিটটি উৎপাদনে আসার কথা। নতুন এই ইউনিটটি চালু রাখতে বছরে প্রায় ছয় লাখ ৫০ হাজার টন কয়লার প্রয়োজন হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here