বড়পুকুরিয়ার পানি ব্যবস্থাপনার প্রতিবেদন সেপ্টেম্বরে

0
5

বড়পুকুরিয়া কয়লা খনির উত্তরাংশ থেকে উন্মুক্ত পদ্ধতিতে কয়লা উত্তোলন করার বিষয়ে সেপ্টেম্বর মাসে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। ঐ অঞ্চলের পানি ব্যবস্থাপনা বিষয়ে জরিপ চলছে। জরিপের প্রতিবেদন পাওয়া গেলেই এবিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।
বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে জেলা প্রশাসন সম্মেলন শেষে বিদু্যৎ জ্বালানি ও খনজি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ সাংবাদিকদের একথা জানান। এ সময় প্রধানমন্ত্রীর বিদু্যৎ – জ্বালানি উপদষ্টো ড. তৌফকি ই ইলাহী চৌধুরী বীর বিক্রম উপস্থিত ছিলেন।
তিনি বলেন, পানি ব্যবস্থাপনার নকশা তৈরীর কাজ চলছে। সেপ্টেম্বর মাসে এই নকশা পাওয়া যাবে। এরপরই এবিষয় সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।
বড়পুকুরিয়া কয়লা খনির নিচের পানি ব্যবস্থাপনার নকশা তৈরী করছে পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়রে ইন্সটিটিউট অব ওয়াটার মডেলিং (আইডব্লউিএম) বিভাগ।
প্রতমিন্ত্রী বলনে, উন্মুক্ত পদ্ধতিতে উৎপাদিত কয়লা দিয়ে বিদু্যৎ কেন্দ্র স্থাপন করা হবে। এর জমি অধগ্রিহণরে পরকিল্পনা হাতে করা হচ্ছে। কয়লা উত্তোলন করতে সময় লাগবে পাঁচ বছর। কয়লা উত্তোলন ও বিদু্যৎ কেন্দ্র স্থাপনের কাজ এক সাথেই চলবে।
সম্মলনে জেলা প্রশাসকরা নিরবিচ্ছিন্ন বিদু্যৎ সরবরাহ চেয়েছে বলে প্রতিমন্ত্রী জানান। তিনি বলেন, বলেছি বিদু্যতের উৎপাদনে সমস্যা নেই। তবে বিতরণ ব্যবস্থায় সমস্যা আছে। এসমস্যা সমাধানে কাজ চলছে।
তৌফকি-ই ইলাহী চৌধুরী বলেন, অতীতের যে কোন সময়ের চেয়ে এখন বিদু্যৎ পরিস্থিতি ভাল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here