বিদ্যুত্খাতে বরাদ্দ কমিয়ে ১ হাজার ২৮৫ কোটি টাকা করা হয়েছে

0
1

চলতি অর্থবছরের সংশোধিত বাজেটের উন্নয়ন বরাদ্দে বিদ্যুত্ বিভাগ ৫০ শতাংশ বাড়িয়ে প্রাথমিকভাবে ২ হাজার ৫০০ কোটি টাকা চাইলেও তা কমিয়ে ১ হাজার ২৮৫ কোটি টাকা করা হয়েছে।অন্যদিকে আগামী অর্থবছরে (২০১৪-১৫) বিদ্যুতখাতের উন্নয়ন প্রকল্পর জন্য ১১ হাজার ১৪৭ কোটি টাকা বরাদ্দ চাওয়ার পরিকল্পনা করেছে বিদ্যুত্ বিভাগ।আজ অর্থ মন্ত্রণালয়ের কাছে এই বরাদ্দ চেয়ে চিঠি দেয়া হবে।

গতকাল বিদ্যুত্ বিভাগের সঙ্গে অর্থমন্ত্রণালয়ের বাজেট ব্যবস্থাপনা কমিটির বৈঠকে এ তথ্য জানানো হয়।

বিদ্যুত্ সচিব মনোয়ার হোসেনের সভাপতিত্বে বৈঠকে বিদ্যুত্ বিভাগ ও অর্থ বিভাগের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

বিদ্যুত্ বিভাগকে নয় হাজার ৮৬২ কোটি ৭১ লাখ টাকা বরাদ্দ দেয়া হবে বলে অর্থ বিভাগ থেকে আগেই জানানো হয়।কিন্তু বিদ্যুত্ বিভাগ জানায়, আগামী অর্থ বছরের উন্নয়ন প্রকল্পগুলোর বিপরীতে আরো অন্তত আড়াই হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ প্রয়োজন।শেষ পর্যন্ত এক হাজার ২৮৫ কোটি টাকা বরাদ্দ বৃদ্ধির সম্মতি দেয় অর্থ বিভাগ।

বৈঠকে জানানো হয়, আগামী অর্থ বছরে বিদ্যুত্ বিভাগের ১১টি সংস্থা এবং কোম্পানির মোট ১৩ হাজার ৪০৩ কোটি টাকা উন্নয়ন বরাদ্দের প্রয়োজন।কিন্তু অর্থ সংস্থান না হওয়ায় বিদ্যুত্ বিভাগকে চার হাজার ৫৩১ কোটি টাকা প্রকল্প সাহায্য এবং সরকারী তহবিল থেকে পাঁচ হাজার ৩৩১ কোটি টাকা সরবরাহ করা হবে।চলতি অর্থবছরে বিদ্যুত্ বিভাগের জন্য নয় হাজার ৬০ কোটি টাকার উন্নয়ন বরাদ্দ রয়েছে।

বিদ্যুত বিভাগ সূত্র জানায়, সরকারী পরিকল্পনায় এখন ভিশন ২০২১ বাস্তবায়নের কাজ করা হচ্ছে।এর লক্ষ্য হচ্ছে দেশের প্রত্যেকটি মানুষের ঘরে বিদ্যুত্ পৌছে দেয়া।বিদ্যুত্ উত্পাদনের সঙ্গে সঞ্চালন এবং বিতরন ব্যবস্থার ব্যাপক উন্নয়ন করার চেষ্টা করা হচ্ছে।এ জন্য বিদ্যুত্ কেন্দ্র নির্মাণের সঙ্গে পাওয়ারগ্রীড কোম্পানি অব বাংলাদেশের বিভিন্ন প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হচ্ছে।একই সঙ্গে বিতরণ ব্যবস্থাপনার উন্নয়নের জন্য আলাদা প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হচ্ছে।

 

 

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here