বগুড়ায় বিপিসির ডিপোয় গ্যাস বোতলে বিস্ফোরণ

0
1

বগুড়ায় বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম করপোরেশনের (বিপিসি) এলপি গ্যাস ডিপোতে সিলিন্ডার বিস্ফোরণে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। নিন্ম মানের ও ঝুঁকিপূর্ণ বোতল হওয়ায় এই দুর্ঘটনা হয়েছে বলে অনেকে অভিযোগ করেছেন।

শনিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে শহরতলীর  বনানী দ্বিতীয় বাইপাস সড়কের বেতগাড়ী লিচুতলা এলাকায় অবস্থিত বিপিসি’র গ্যাস সিলিন্ডার ডিপোতে এই দুর্ঘটনা ঘটে। ট্রাক থেকে বোতল নামানোর সময় গ্যাসের বোতল বিষ্ফোরণ হয়। বিস্ফোরণে কেউ হতাহত না হলেও অগ্নিকাণ্ডে তিন শতাধিক গ্যাস সিলিন্ডার, একটি ট্রাক সম্পূর্ণ ও দুইটি ট্রাক আংশিক আগুনে পুড়েছে। আর এতে প্রায় অর্ধকোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে সংশ্লিষ্ঠটা জানিয়েছেন।
স্থানীয়রা জানান, বেতগাড়ী লিচুতলা এলাকায় বিপিসি’র পদ্মা, মেঘনা ও যমুনা এলপি গ্যাস কোম্পানির উত্তরাঞ্চলের আঞ্চলিক  ডিপো। এই ডিপোতে আসার পর এই অঞ্চলের ডিলারদের কাছে এলপিজি সিলিন্ডার সরবরাহ করা হয়।

শনিবার  ডিপোতে পদ্মা কোম্পানির ৩৭৮টি গ্যাস সিলিন্ডার ভর্তি একটি ট্রাক আসে। ট্রাক থেকে সিলিন্ডারগুলো নামানোর সময় একটি সিলিন্ডার বিকট শব্দে বিস্ফোরিত হয়। সঙ্গে সঙ্গে ট্রাক ও অন্যান্য গ্যাস সিলিন্ডারে আগুন ধরে যায়। এ সময় পাশে রাখা অপর দু’টি ট্রাক আগুনে পুড়ে আংশিক ক্ষতিগ্রস্ত হয়। খবর পেয়ে বগুড়া ও শেরপুর ফায়ার সার্ভিসের ছয়টি ইউনিট একঘণ্টা চেষ্টার পর আগুন নেভাতে সক্ষম হয়।

বগুড়া ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের উপ-সহকারী পরিচালক আব্দুল হামিদ জানান,  আগুনে নেভানোর কাজে মোট ছয়টি ইউনিট একযোগে কাজ করে।

রাজশাহী বিভাগীয় এলপি গ্যাস পরিবেশক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আহসানুর রশীদ ডাবলু জানান, আগুনে তিন শতাধিকের মতো গ্যাস সিলিন্ডার পুড়ে গেছে। সব মিলিয়ে অগ্নিকাণ্ডে অর্ধকোটির টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

নামপ্রকাশে অনিচ্ছুক একজন পরিবেশক অভিযোগ করে বলেন, বিপিসি’র এই ডিপো থেকে যেসব সিলিন্ডারে গ্যাস সরবরাহ করা হয়ে থাকে – তার বেশিরভাগেরই মেয়াদ উত্তীর্ণ। বিস্ফোরণের পর দেখা গেছে অনেক সিলিন্ডারেরই নিচের তলার অংশ পাতলা হয়ে গেছে। এসব সিলিন্ডার ঝুঁকিপূর্ণ। কিন্তু অনেক অভিযোগ করার পরও কর্তৃপক্ষ কানে তোলেনি। এই সিলিন্ডারগুলো সরবরাহ করার পর বিস্ফোরিত হলে অনেক প্রাণহানির ঘটনা ঘটতো। এমনকি যে পরিবহন এগুলো বহন করছে – সেগুলোও বোমা বহনের মতো যে কোন সময় বড় ধরনের দুর্ঘটনার শিকার হতে পারে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here