পেট্রোলিয়াম করপোরেশন ও স্পারসো আইনের অনুমোদন

0
0

পেট্রোলিয়াম কর্পোরেশন আইন-২০১৫ অনুমোদন দেয়া হয়েছে। একই সঙ্গে বাংলাদেশ মহাকাশ গবেষণা ও দূর অনুধাবন প্রতিষ্ঠান (সংশোধন) আইন, ২০১৫ এর চূড়ান্ত অনুমোদন দেয়া হয়।
সোমবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে সচিবালয়ে মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠকে এই আইনের খসড়া অনুমোদন করা হয়েছে।
বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ মোশাররাফ হোসাইন ভূইঞা সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান। তিনি বলেন, গত ২রা মার্চ পেট্রোলিয়াম আইনের খসড়ায় নীতিগত অনুমোদন দেয়া হয়েছিল। চূড়ান্ত অনুমোদনে তেমন কোনো পরিবর্তন হয়নি। মূল আইনে বলা আছে কর্পোরেশনের একজন চেয়ারম্যান থাকবেন এবং পাঁচজন পূর্ণকালীন পরিচালক থাকবেন। এখন পূর্ণকালীন পরিচালক পাঁচজনের পরিবর্তে আটজন করা হয়েছে। কারণ এই কর্পোরেশনের কাজ অনেক বেশি। তিনি জানান, পরিচালকদের মধ্যে খনিজ সম্পদ বিভাগ, বিদ্যুৎ বিভাগ ও অর্থ বিভাগের যুগ্মসচিব পদমর্যাদায় তিনজন সরকারি প্রতিনিধি থাকবেন। এছাড়া বোর্ডে পাঁচজনে কোরাম হবে, তবে এরমধ্যে সরকারি তিনজন প্রতিনিধির একজনকে অবশ্যই থাকতে হবে।
বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম কর্পোরেশন সামরিক শাসনামলের ‘বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম কর্পোরেশন অর্ডিনেন্স ১৯৭৬’ দিয়ে পরিচালিত হয়। সামরিক শাসনামলের প্রয়োজনীয় আইন মন্ত্রিসভার নির্দেশনা অনুযায়ী বাংলায় করা হচ্ছে। এ আইন বাংলায় করার সময় কিছু সংশোধন করা হয়েছে। কর্পোরেশনের অনুমোদিত মূলধন ছিল এক কোটি টাকা, এটাকে বাড়িয়ে পাঁচ কোটি টাকা করা হয়েছে।
এছাড়া সংশোধিত স্পারসো আইন চূড়ান্ত অনুমোদনের বিষয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, এ আইনটি ১৯৯১ সালের। এ আইন অনুযায়ী পরিচালনা বোর্ডে একজন সার্বক্ষণিক চেয়ারম্যান ও তিনজন সার্বক্ষণিক পরিচালক রয়েছেন। সংশোধিত আইনে বোর্ডের সার্বক্ষণিক পরিচালক সংখ্যা চারজন করা হয়েছে। এরমধ্যে দুই জন আসবেন এ প্রতিষ্ঠানে কর্মরত প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তাদের মধ্য থেকে জ্যেষ্ঠতা ও যোগ্যতারভিত্তিতে। বাকি দুটি পদ উম্মুক্ত রাখা হয়েছে। সরকার যাকে যোগ্য মনে করে তাকে নিয়োগ দিতে পারবে।
অন্যদিকে মন্ত্রিসভায় ‘হেড কোয়ার্টার্স এগ্রিমেন্ট বিটুইন দ্য গভর্নমেন্ট অব দ্য পিপলস রিপাবলিক অব বাংলাদেশ অ্যান্ড সাউথ এশিয়ান রিজিওনাল স্ট্যান্ডার্স অর্গানাইজেশন (সারসো)’ ও ‘হেড কোয়ার্টার্স এগ্রিমেন্ট বিটুইন দ্য গভর্নমেন্ট অব দ্য পিপলস রিপাবলিক অব বাংলাদেশ অ্যান্ড দ্য সেক্রেটারিয়েট অব দ্য বে অব বেঙ্গল ইনেশিয়েটিভ ফর মাল্টিসেক্টরাল টেকনিক্যাল অ্যান্ড ইকনোমিক কো-অপারেশন (বিসমটেক)’ অনুমোদন দেয়া হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here