রাজশাহিঞ্চলের বিদ্যুৎ কোম্পানির বিরুদ্ধে রিট খারিজ

0
3

পিডিবির অধীন রাজশাহী ও রংপুর অঞ্চলের বিদ্যুৎ বিতরণ কার্যক্রম নর্থ ওয়েস্ট জোন পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানির কাছে হস্তান্তরের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে করা রিট আবেদন খারিজ করে দিয়েছে হাই কোর্ট।

বাদী পক্ষের সম্মতিতে সোমবার বিচারপতি মো. রেজাউল হক ও বিচারপতি মো. জাহাঙ্গীর হোসেনের বেঞ্চ রিট আবেদনটি ’উপস্থাপিত হয়নি’ মর্মে খারিজ করে।

মো. আবদুল মান্নান নামে এক ব্যক্তি গত ২৬ সেপ্টেম্বর এই রিট আবেদনটি দায়ের করেছিলেন। রোববার ও সোমবার এর উপর প্রাথমিক শুনানি হয়।

আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল অমিত তালুকদার। রোববার বাদীপক্ষে শুনানি করেন সাবেক আইনমন্ত্রী আবদুল মতিন খসরু। সোমবার শুনানি করেন শামীমা আক্তার।

আদালতে অমিত তালুকদার বলেন, হস্তান্তরের যে আদেশের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে রিট আবেদন হয়েছে, সেটা এরই মধ্যে হয়ে গেছে। তাই এ বিষয়ে এখন আর রিট চলে না।

এরপর আদালত রিট আবেদনটি ‘উপস্থাপিত হয়নি’ মর্মে খারিজ করে দেয়।

বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড ও নর্থ ওয়েস্ট জোন পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানির সঙ্গে গত ১ অগাস্ট স্বাক্ষরিত সমঝোতা স্মারক এবং রাজশাহী ও রংপুর অঞ্চলের পিডিবিকে নর্থ ওয়েস্ট পাওয়ারে কাছে ৩০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে হস্তান্তরে গত ২০ সেপ্টেম্বর জ্বালানি মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ সহকারী সচিব কর্তৃক জারি করা দাপ্তরিক আদেশকে কেন আইনগত কর্তৃত্ব বহির্ভূত ঘোষণা করা হবে না, মর্মে রুল চাওয়া হয়।

একইসঙ্গে সমঝোতা স্মারকের কার্যক্রমে স্থগিতাদেশ চাওয়ার পাশাপাশি অফিস আদেশ অনুসারে স্থানান্তর থেকে বিরত থাকার নির্দেশনাও চাওয়া হয়।

জ্বালানি মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ সহকারী সচিব মো. মোখলেছুর রহমান আকন্দ স্বাক্ষরিত ওই অফিস আদেশে বলা হয়, রাজশাহী ও রংপুর বিভাগের বিদ্যুৎ বিতরণ ব্যবস্থা/বাণিজ্যিক কার্যক্রম, জনবল, সম্পদ (স্থাবর-অবস্থাবর) এবং দায় দেনা হস্তান্তর পূর্বক এই বিভাগকে অবহিত করতে নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হলো। একইসঙ্গে সংশ্লিষ্ট এলাকার কর্মকর্তাগণকে কোম্পানির কার‌্যক্রমে সার্বিক সহযোগিতা করার জন্যও অনুরোধ করা হলো।

জ্বালানি সচিব, জ্বালানি মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ সহকারী সচিব, বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের সচিব, বোর্ডের চেয়ারম্যান, নর্থ ওয়েস্ট জোন পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানির চেয়ারম্যানকে এই রিটে বিবাদী করা হয়।

রিট আবেদনের যুক্তিতে বলা হয়, যে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়েছে, তা করার মতো প্রয়োজনীয় আইনগত অনুমতি বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের নেই। রাষ্ট্রীয় স্টেকহোল্ডারের সম্পদ হস্তান্তরে ১৯৭২ সালের প্রেসিডেন্সিয়াল অর্ডার ৫৯ এর লঙ্ঘন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here