তাপমাত্রা বৃদ্ধি দেড় ডিগ্রি শতাংশের নিচে রাখার প্রস্তাব করেছে বাংলাদেশ

0
2

পৃথিবীর গড় তাপমাত্রা কমিয়ে আনতে আসন্ন প্যারিস জলবায়ু সম্মেলনে বাংলাদেশ বিশ্বের তাপমাত্রা বৃদ্ধি দেড় ডিগ্রি শতাংশের নিচে রাখার প্রস্তাব করেছে বলে জানিয়েছেন পরিবেশ ও বনমন্ত্রী আনোয়ার হোসেন মঞ্জু।

তবে পৃথিবীর উন্নয়শীল দেশগুলো যে প্রস্তাব করেছে তাতে পৃথিবীর তাপমাত্রা চার ডিগ্রি হারে বাড়তে পারে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

শনিবার সকালে রাজধানীর সোনারগাঁও হোটেলে ‘বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক মডেল ইউনাইটেড নেশনস-২০১৫’ সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা জানান।

‘জলবায়ু পরিবর্তন ও টেকসই উন্নয়ন’ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে চার দিনের এ সম্মেলন ২৪ নভেম্বর শেষ হবে।

পরিবেশ ও বনমন্ত্রী আনোয়ার হোসেন মঞ্জু বলেন, জলবায়ু পরিবর্তন একটি বৈশ্বিক সমস্যা। পৃথিবীর তাপমাত্রা কমিয়ে আনতে আসন্ন প্যারিস জলবায়ু সম্মেলনের জন্য বাংলাদেশ ইতোমধ্যেই প্রস্তাব জমা দিয়েছে। এতে পৃথিবীর গড় তাপমাত্রা বৃদ্ধি দেড় ডিগ্রি শতাংশের নিচে রাখার প্রস্তাব করা হয়েছে।

মন্ত্রী বলেন, তবে প্যারিস জলবায়ু সম্মেলনে উন্নত দেশসহ পৃথিবীর বিভিন্ন দেশ যে প্রস্তাব দিয়েছে, তাতে তাপমাত্রা বছরে চার ডিগ্রী হারে বাড়বে। যা পুরো পৃথিবীর জন্য বিপদ ডেকে আনতে।

মন্ত্রী বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে বছরে বিশ্ব অর্থনীতিতে জিডিপি নয় শতাংশ হারাচ্ছে। এ অবস্থা চলতে থাকলে মধ্যের ও নিম্ন আয়ের দেশগুলোর কী অবস্থা দাঁড়াবে তা নিয়ে চিন্তার বিষয় রয়েছে।

তিনি বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনের ঝুঁকি মোকাবেলায় উন্নত দেশ সস্তা ১শ বিলিয়ন ডলারের তহবিল গঠনের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। উন্নত দেশগুলো যেমন দূষণের জন্য দায়ী, অনুন্নত দেশগুলোও কম দায়ী না। এ বিষয়টি মাথায় রাখতে হবে।

ব্লেইম গেইম মাধ্যমে না গিয়ে জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলায় সবাইকে বাস্তবসম্মত সিদ্ধান্তে পৌঁছাতে আহ্বান করেছেন পরিবেশ ও বনমন্ত্রী।

সম্মেলনে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম বলেন, জলবায়ু পরিবর্তন ইস্যু পৃথিবীর সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ। মানুষের টিকে থাকার সঙ্গে তা জড়িত। সহনীয় তাপমাত্রা বজায় রাখতে ইতিবাচক পলিসির মাধ্যমে এ সমস্যার সমাধান করতে হবে।

সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় বিষয়ক সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য নাহিম রাজ্জাক, বাংলাদেশ জাতিসংঘের আবাসিক সমন্বয়কারী রবার্ট ওয়াকিন্স। সম্মেলনে সেক্রেটারি জেনারেলের দায়িত্ব পালন করেন ইউনিস্যাবের সভাপতি মোহাম্মদ মামুন মিয়া।

সম্মেলনের আয়োজকরা জানান, বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক মডেল ইউনাইটেড নেশনস সম্মেলনে যুক্তরাষ্ট্র, তুরস্ক, ভারত, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা, নেপালসহ বিভিন্ন দেশের ৮শ প্রতিনিধি ও অতিথি অংশ নিচ্ছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here