জাপানের করপোরেশন, বিদ্যুতের ব্যয় বেড়েছে

0
4

২০১০ সালের তুলনায় গত জুন-জুলাইয়ে বিদ্যুতের পেছনে জাপানের করপোরেশনগুলোর ব্যয় গড়ে ২২ শতাংশ বেড়েছে। ২০১১ সালে ফুকুশিমা দুর্ঘটনার পর দেশটি সব পারমাণবিক বিদ্যুেকন্দ্র বন্ধ করে দিয়ে বিকল্প উেসর ওপর নির্ভরশীল হয়, যা বিদ্যুতের দাম অনেক বাড়িয়ে দেয়। খবর নিক্কেই।
জুন-জুলাইয়ে জাপানের ৪৩টি ম্যানুফ্যাকচারিং এবং ৩৫টি সেবা করপোরেশনের মধ্যে চালানো এক জরিপে বিদ্যুতের পেছনে তাদের ব্যয় বৃদ্ধির এ চিত্র উঠে আসে।
জীবাশ্ম জ্বালানি পুড়িয়ে বিদ্যুত্ উত্পন্ন করতে বাধ্য হওয়ায় ২০১২-১৪ সময়ে দাম বাড়ায় জাপানের সাতটি বিদ্যুত্ উত্পাদন কোম্পানি, যার সবচেয়ে বড় অংশটি শেষ পর্যন্ত গ্রাহকদের ওপরই চাপে।
সরকারের হিসাবে, ২০১০-১৩ সময়ে বাণিজ্যিক সংযোগে বিদ্যুতের দাম বাড়ে ২৮ শতাংশ আর আবাসিক সংযোগে দাম বাড়ে ১৯ শতাংশ। এ সময় ব্যবহারকারীরা বিদ্যুত্সাশ্রয়ী প্রযুক্তির ব্যবহার বৃদ্ধি, নিজস্ব বিদ্যুতের বিকল্প ব্যবস্থার মাধ্যমে বিদ্যুত্ বাবদ তাদের খরচ কিছুটা কমিয়ে আনে। সরকারের অনুমান, চলতি বছরে ২০১০ সালের তুলনায় গ্রাহকরা ৭ শতাংশ বিদ্যুত্ কম কিনবে।
প্রতিযোগিতা সক্ষমতা ধরে রাখতে জাপান বিদ্যুতের দাম কমাতে পারছে না। তবে আগামী কয়েক বছরে করপোরেট কর বর্তমান ৩৫ শতাংশ থেকে ২০ শতাংশে নামিয়ে আনার পরিকল্পনা করছে সরকার।
বিভিন্ন হিসাবে বলা হচ্ছে, বিদ্যুতের দাম ২০ শতাংশ বাড়লে, তা করপোরেট কর ৪ শতাংশ কমার সুফল কেড়ে নেবে। এছাড়া আগামী তিন বছরে বিদ্যুতের দাম আরো ২০ শতাংশ বাড়লে এ সময় করপোরেশনগুলোর করপূর্ব মুনাফা ১১ দশমিক ২ শতাংশ কমে যাবে। তিন বছরে জিডিপি থেকে ৬ দশমিক ২ ট্রিলিয়ন ডলার কমে যাবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here