চলতি বছর বিবিয়ানার উত্পাদন দাঁড়াবে ১১০ কোটি ঘনফুটে

0
7

চলতি বছর দেশের বৃহত্তম গ্যাসক্ষেত্র বিবিয়ানার উত্পাদনক্ষমতা বেড়ে দাঁড়াবে ১১০ কোটি ঘনফুটে।নতুন খনন করা ১২টি কূপ থেকে প্রতিদিন বাড়তি ৩০ কোটি ঘনফুট গ্যাস উত্তোলনের কারণে এক্ষেত্রের উত্পাদন বাড়বে।আগামী আগস্ট মাসের মধ্যেই এই উত্পাদন বাড়বে বলে আশা করা হচ্ছে।

দেশে চলমান গ্যাস সংকট মোকাবেলায় বিবিয়ানা গ্যাসক্ষেত্র সমপ্রসারণ প্রকল্পের অধীনে ৫০ কোটি ডলার বিনিয়োগ করেছে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক কোম্পানি শেভরন।বিবিয়ানার গ্যাসক্ষেত্রে ১২ টি কূপ আগে ছিল।এখন নতুন করে এ প্রকল্পের আওতায় আরো ১২টি কূপ খনন করা হচ্ছে।ক্ষেত্রের উত্তরদিকে এখন আছে ৭টি কূপ, এখানে আরো ৪টি কূপ খনন করা হবে।দক্ষিণ দিকে ৫টি ছিল এখন আরো ২টি করা হবে।বাকী ৬টি কূপ খনন করা হবে ক্ষেত্রের পশ্চিমাংশে।

সম্প্রতি জ্বালানি বিভাগের অনুষ্ঠিত এক বৈঠকে শেভরনের পক্ষ থেকে জানানো হয়, ১২টির মধ্যে ৭টির খনন কাজ প্রায় শেষ।বাকী ৫টির কাজ আগস্টের মধ্যেই শেষ হবে।কূপ খননের পাশাপাশি প্রসেস প্ল্যান্টের (গ্যাস প্রক্রিয়াকরণ) ক্ষমতাও বাড়ানো হয়েছে।খননকৃত নতুন কূপগুলোর মধ্যে দুইটি কূপ থেকে এরই মধ্যে গ্যাস উত্তোলন শুরু হয়েছে।খনন শেষ করার পাশাপাশি গ্যাদারিং লাইন স্থাপনের কাজ করছে শেভরণ।মার্চ মাস থেকেই এক্ষেত্রের উত্পাদন বাড়তে শুরু করবে।তবে সব কাজ শেষ করতে আগস্ট মাস পর্যন্ত সময় লাগবে বলে জানিয়েছে শেভরন।

পেট্রোবাংলা সূত্র জানায়, এই বাড়তি গ্যাস সরবরাহের ক্ষেত্রে গ্যাস ট্রান্সমিশন কোম্পানির (জিটিসিএল) বিবিয়ানা-ধনুয়া সঞ্চালন লাইন স্থাপনের কাজ চলছে ধীর গতিতে।

পেট্রোবাংলার চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. হোসেন মনসুর মানবকণ্ঠকে বলেন, বিবিয়ানা সমপ্রসারণ প্রকল্পের কাজ নির্ধারিত সময়েই শেষ হবে।সেখান থেকে বাড়তি গ্যাস এলে বর্তমানে চাহিদার বিপরীতে সরবরাহের যে পার্থক্য তা কমে আসবে।তবে এর সুফল যথাসময়ে পেতে বিবিয়ানা-ধনুয়া সঞ্চালন লাইন প্রকল্পটি নির্ধারিত সময়ের মধ্যে শেষ করতে হবে।এজন্য জিটিসিএলকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

জিটিসিএল’র কর্মকর্তারা জানান, ১৩৭ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যের বিবিয়ানা-ধনুয়া সঞ্চালন লাইন স্থাপনের জন্য মাঠ পর্যায়ের কাজ শুরু হয়েছে।১৪টি রিভার ক্রসিং থাকায় এ প্রকল্পটি অন্য প্রকল্পের চেয়ে জটিল।তাই সময় লাগাটা স্বাভাবিক।তবে নির্ধারিত সময়ের মধ্যেই প্রকল্পের কাজ শেষ করার চেষ্টা চলছে।

গ্যাসের উত্পাদন বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে এক্ষেত্রের কনডেনসেটের উত্পাদনও বাড়বে দৈনিক চার হাজার ব্যারেল।

বর্তমানে বিবিয়ানায় উত্তোলনযোগ্য গ্যাসের পরিমাণ ৫ দশমিক ৭৬ ট্রিলিয়ন ঘনফুট (টিসিএফ)।এরমধ্যে দেড় টিসিএফের মতো গ্যাস তোলা হয়েছে।বর্তমানে সেখানে ১২টি কূপ থেকে প্রতিদিন ৮৫ কোটি ঘনফুট গ্যাস উত্পাদন হয়, যা বর্তমানে দেশে উত্পাদিত মোট গ্যাসের ৩৪ শতাংশ।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here