বিদ্যুতের দাম বাড়ানোর প্রস্তাব

0
6

বিদ্যুতের দাম ১৫ থেকে ১৮ ভাগ বাড়ানোর প্রস্তাব দিয়েছে তিনটি বিতরণ কোম্পানি। বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন বলছে সোমবার পর্যন্ত ঢাকা ইলেক্ট্রিক সাপ্লাই কোম্পানি (ডেসকো), ওয়েস্টজোন পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি (ওজোপাডিকো) এবং পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ড (আরইবি) বিদ্যুতের দাম বাড়ানোর প্রস্তাব দিয়েছে। বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড (পিডিবি) এবং ঢাকা পাওয়ার ডিষ্ট্রিবিউশন কোম্পানি (ডিপিডিসি) দাম বাড়ানোর প্রস্তাব এখনও জামা দেয়নি।
বিইআরসি’র একজন সদস্য সোমবার জানান, তিনটি কোম্পানি ১৫ থেকে ১৮ ভাগ দাম বাড়ানোর প্রস্তাব দিয়েছে। যেহেতু পাইকারীর সঙ্গে খুচরাও সমন্বয় করা হবে তাই একই সঙ্গে উভয় ধরনের বিদ্যুতের দাম নির্ধারণ করা হবে।
গতমার্চে বিদ্যুতের খুচরা পর্যায়ে দাম বাড়ানোর সময় বলা হয়েছিল বারবার যাতে না বাড়াতে হয় সে জন্য একবারে বেশি করে বাড়ানো হয়েছে। কিন্তু এখন বছর না ঘুরতেই পাইকারী বিদ্যুতের সঙ্গে খুচরা দাম বাড়ানোর প্রক্রিয়া শুরু হল।
এদিকে গতমাসে পিডিবি পাইকারী পর্যায়ে প্রতি ইউনিট বিদ্যুৎ উৎপাদন পর্যায়ে ৮১ পয়সা বাড়ানোর প্রস্তাব দিয়েছে। পাইকারি পর্যায়ে বর্তমানে প্রতি ইউনিট বিদ্যুতের মূল্য চার টাকা ৭০ পয়সা। এটি বাড়িয়ে পাঁচ টাকা ৫১ পয়সা করার প্রস্তাব করা হয়েছে। যদিও চলতি অর্থ-বছরে প্রতি ইউনিটে পিডিবির খরচ হবে ছয় টাকা ৫৪ পয়সা। দাম বাড়ানোর পরও ঘাটতি হবে চার হাজার কোটি টাকা। পিডিবির মতে, প্রতি ইউনিট বিদ্যুৎ বিক্রিতে পিডিবি লোকসান করে এক টাকা ৮৪ পয়সা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here