কয়লাকে ছাড়িয়ে গেল নবায়নযোগ্য জ্বালানি

0
2
পরমাণু শক্তি কমিশন কার্যালয়ের সামনে সৌর প্যানেল

আন্তর্জাতিক জ্বালানি সংস্থা ইন্টারন্যাশনাল এনার্জি এজেন্সি (আইইএ) বলছে, বিশ্বে বিদ্যুৎ উৎপাদনের সক্ষমতার হিসাবে নবায়নযোগ্য জ্বালানি দীর্ঘদিনের প্রচলিত উপাদান কয়লাকে ছাড়িয়ে গেছে। এক প্রতিবেদনে সংস্থাটি জানিয়েছে, গত বছর বিদ্যুৎ উৎপাদন যে পরিমাণ বৃদ্ধি পেয়েছিল তার অর্ধেকের বেশি এসেছে নবায়নযোগ্য জ্বালানি থেকে।
আইইএ-র প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত বছর বিশ্বজুড়ে প্রতিদিন প্রায় পাঁচ লাখ সোলার প্যানেল লাগানো হয়েছে। আর চীনে প্রতি ঘণ্টায় বসানো হয়েছে দুটি করে বায়ুকল।
আন্তর্জাতিক জ্বালানি সংস্থার নির্বাহী পরিচালক ফাতিহ বিরল বলেছেন, ‘আমরা নবায়নযোগ্য জ্বালানির নেতৃত্বে বৈশ্বিক জ্বালানির বাজারে এক রূপান্তরের সাক্ষী হচ্ছি।’
নবায়নযোগ্য জ্বালানির উৎস হিসেবে মূলত বাতাস, সৌরশক্তি ও পানি ব্যবহার করা হয়। জলবায়ুর পরিবর্তন রোধ করার জন্য আন্তর্জাতিক প্রচেষ্টার অংশ হিসেবে এই তিনটিকেই ধরা হয় পরিবেশ অনুকূল শক্তি উৎপাদনের প্রধান উপাদান।
নবায়নযোগ্য জ্বালানি বিদ্যুৎ উৎপাদনে সক্ষমতার দিক থেকে কয়লাকে ছাড়িয়ে গেলেও বিদ্যুতের মোট উৎপাদনের ক্ষেত্রে চিত্রটা এখনো ভিন্ন। নবায়নযোগ্য জ্বালানি থেকে বিদ্যুৎ উৎপাদনে কিছু বাধা রয়ে গেছে। কারণ এটি সূর্যের আলোর তীব্রতা বা বাতাসের গতির ওপর অনেকটাই নির্ভর করে। অন্যদিকে কয়লা দিয়ে দিনের ২৪ ঘণ্টাই বিদ্যুৎ উৎপাদন করা যায়। তবে এখন নবায়নযোগ্য জ্বালানি এ সীমাবদ্ধতা কাটিয়ে উঠতে অনেক উন্নতি করেছে।

 

 

 

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here