এক ছায়াপথে তিনটি কৃষ্ণগহ্বর আবিষ্কার

0
6

বেশির ভাগ ছায়াপথের ভিতরেই বিশাল কৃষ্ণগহ্বর ওৎ পেতে রয়েছে। কিন্তু পৃথিবী থেকে ৪ বিলিয়ন আলোকবর্ষ দূরের একটি ছায়াপথের কেন্দ্রে সম্প্রতি একটি নয়, দুটিও নয় তিনটি গিগেনটিক কৃষ্ণগহ্বর আবিষ্কৃত হয়েছে। খবর স্যালুনডটকমের।।

তিনটি কৃষ্ণগহ্বরের দর্শন সমাহার খুবই দুর্লভ। এরকম শুধু চারটি ঘটনা জানা আছে। আবিষ্কৃত নতুন এই কৃষ্ণগহ্বরগুলোর দুটি একে অপরকে খুব কাছাকাছি থেকে পরিভ্রমন করছে। যেটি প্রায় ৪৫০ আলোকবর্ষ দূরে। আর তৃতীয় কৃষ্ণগহ্বরটি আরো যৎসামান্য বাহিরে। এই তিন কৃষ্ণগহ্বরের সমাহার তারিখ অনুযায়ী তিন বর্গীয় গহ্বরের সেতুবন্ধনের দৃঢ়তাকে প্রতিনিধিত্ব করে। ন্যাচার জার্নালে এর বিস্তারিত বর্ণনা রয়েছে।

এই নিয়মে ছায়াপথের কেন্দ্রে কৃষ্ণগহ্বরগুলো পরিভ্রমন করে। পরিশেষে অভিকর্ষ বল এগুলোকে একত্রে কাছে থেকে আরো কাছে টেনে নেয়। এমনকি শেষ পর্যন্ত যদি এগুলো বৃহত্তর কোনকিছুও হয়।

গবেষকরা আশা করছেন, তিন কৃষ্ণগহ্বর পদ্ধতির অবস্থানটি ভালো একটি স্থানে হবে হয়ত যেখান থেকে শুন্যে মৃদু তরঙ্গ আকৃতি লক্ষ করা যাবে। যেটাকে বলা হয় অভিকর্ষ তরঙ্গ।

যতি কৃষ্ণগহ্বরের পরিভ্রমন কমে যায় তবে গহ্বরগুলো পরিভ্রমন শক্তির কিছু আলো দূরে বিকিরণ করবে। যেটা অভিকর্ষ তরঙ্গ হিসেবে সাধারণভাবেই প্রত্যাশিত। আর একশত বছর আগে আইনস্টাইন এই ভবিষ্যৎবাণী করে গিয়েছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here