একবসাতেই বিদ্যুৎ সংযোগ

0
10

‘একবসাতেই বিদ্যুৎ সংযোগ’ দিচ্ছে বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ড (বিআরইবি)। আবাসিক গ্রাহকরা এই সুবিধা পাবেন। প্রয়োজনীয় সকল কাগজসহ বিদ্যুৎ অফিসে উপস্থিত হলেই সংযোগ পাওয়া যাচ্ছে। তবে যেসব এলাকায় বিদ্যুতের যথাযথ লোড আছে শুধু সেখানেই এই কার্যক্রম শুরু করা হচ্ছে।
পল্লী বিদ্যুতের ৭২টি সমিতিতে পর্যায়ক্রমে এই কার্যক্রম চালু করা হবে। গতকাল শনিবার ঢাকা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২ এর আওতাধীন কেরাণীগঞ্জ উপজেলার জিঞ্জিরা ইউনিয়নে চালু করা হল এই তাৎক্ষণিক বিদ্যুৎ সংযোগ কার্যক্রম। জিঞ্জিরা ইউনিয়নের সকল গ্রামে এই কার্যক্রমের আওয়ায় দ্রুত বিদ্যুৎ সংযোগ দেয়া হচ্ছে। কেরাণীগঞ্জে  গতকাল এক দিনেই প্রায় একশত গ্রাহককে সংযোগ দেয়া হয়েছে।
গ্রাহক আবেদন করার পর বিআরইবি কর্মকর্তারা সরোজমিন পরিদর্শন শেষে চাহিদাপত্র দিচ্ছেন। চাহিদাপত্রের সাথে জমানতের টাকা জমা দেয়ার পর মিটার লাগানোর ব্যবস্থা করা হচ্ছে। আর এই পুরো ঘটনা ঘটছে কয়েক ঘন্টার মধ্যে। দিনের পর দিন আর অপেক্ষার প্রয়োজন নেই। তবে ক্ষেত্রে সংযোগ প্রত্যাশিকে আগে থেকেই বিদ্যুতের ওয়ারিং এর কাজ করিয়ে রাখতে হবে। বিদ্যুতের ওয়ারিং করা থাকলে এবং সংযোগ প্রত্যাশিত ব্যক্তির এলাকায় বিদ্যুতের অতিরিক্ত লোড না থাকলেই এভাবে সংযোগ দেয়া হবে।
‘একবসাতেই বিদ্যুৎ সংযোগ’ কার্যক্রমে পল্লী বিদ্যুতের সকল কর্মকর্তা-কর্মচারী অংশ নেন। দ্রুত সংযোগ পাওয়ার ফলে বিদ্যুৎ সংযোগ প্রত্যাশীরাও আনন্দিত ও উচ্ছসিত।
দ্রুত সংযোগ দেয়ার জন্য কেরানীগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে অস্থায়ী (ক্যাম্প) অফিস খোলা হয়েছে। এই অস্থায়ী অফিস থেকে চলতি মাসের মধ্যে পাঁচ হাজার নতুন বিদ্যুৎ সংযোগ দেয়ার লক্ষ নির্ধারণ নেয়া হয়েছে। এছাড়া আগামী মাসে নবাবগঞ্জ ও দোহার উপজেলায় এক বসাতেই বিদ্যুৎ সংযোগ দেয়ার কার্যক্রম পরিচালনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে আরইবি। মুন্সিগঞ্জ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২ একবসাতেই সংযোগ দেয়ার কার্যক্রম প্রথম শুরু করেছিল।
কেরাণিগঞ্জে একবসাতেই বিদ্যুৎ সংযোগ কার্যক্রমের উদ্বোধনীতে গতকাল এলাকার বিদ্যুৎ প্রত্যাশী পরিবারের সাথে ঢাকা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২ এর জ্যেষ্ঠ জেনারেল ম্যানেজার মো. রবিউল হোসেন, বাপবিবোর্ডের জনসংযোগ পরিদপ্তরের উপ-পরিচালক ঢালী ইউসুফ আহমেদ, পবিস উন্নয়ন ও পরিচালন (কেন্দ্রীয় অঞ্চল) পরিদপ্তরের উপ-পরিচালক মো. শহিদুল করিম, বাপবিবোর্ডের পরামর্শক তালুকদার রুমী, জিঞ্জিরা জোনাল অফিসের ডিজিএম মো. মিজানুর রহমানসহ অন্যরা উপস্থিত ছিলেন।
আরইবির মোট গ্রাহক সংখ্যা এক কোটি ২০ লাখ। গত জুন মাসে তিন লাখ ৪২ হাজার ৭৩৯টি বিদ্যুৎ সংযোগ দিয়েছে বিআরইবি। মে মাসে দেয়া হয়েছে প্রায় তিন লাখ। গত ছয় মাসে আরইবি সংযোগ দিয়েছে  সাড়ে তেরো লাখ। একই সাথে জুন মাস পর্যন্ত দুই লাখ ৮৩ হাজার কিলোমিটার বিদ্যুৎ লাইন নির্মাণ করেছে। আরইবিতে বিদ্যুতের চাহিদার পরিমাণ চার হাজার মেগাওয়াট যা দেশের মোট চাহিদার প্রায় অর্ধেক।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here